• বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:০৯ অপরাহ্ন
  • ই-পেপার
শিরোনাম :
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ কর্মচারী সংঘের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পল্টুর দূর্নীতি-অনিয়ম তদন্তের নামে সময়ক্ষেপণ, ক্ষুদ্ধ বন্দরের কর্মচারীরা বর্ণাঢ্য আয়োজনে যবিপ্রবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন রানীশংকৈলে তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা মোংলায় প্রধানমন্ত্রীর ৭৪ তম জন্মদিন পালন যশোরের শার্শার ডিহিতে গণহারে টিকা নিতে মানুষের উপচে পড়া ভিড় ছুরিকাঘাতের শিকার (এএসআই) পেয়ারুল ইসলাম মারা গেছেন স্বার্থপর সাধন কুমার দাস ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনি কল রক্ষায় প্রশংসনীয় উদ্যোগ নড়াইলে মহিলার যাবজ্জীবন কারাদন্ড!! নড়াইলে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায়  এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত
নোটিশ :
সাপ্তাহিক রেড নিউজ এ আপনাকে স্বাগতম! এখন থেকে আপনারা প্রিন্ট ভার্সনের পাশাপাশি ২৪ ঘন্টা অনলাইনে খবরা-খবর দেখতে পাবেন। আমাদের সাথেই থাকুন, ধন্যবাদ। খালি থাকা সাপেক্ষে সাংবাদিক নিয়োগ দেওয়া হবে। যোগাযোগ - ০১৭১১-০৫৯৯৮৭

টিকায় অগ্রাধিকার চায় চীনে পড়ুয়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা

চীনা প্রতিনিধি / ১২৬ বার পড়া হয়েছে
আপডেটের সময়ঃ সোমবার, ২১ জুন, ২০২১

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে টিকার আওতায় আসার দাবি জানান শিক্ষার্থীদের সংগঠন ভয়েস অব বাংলাদেশি স্টুডেন্টস ইন চায়না।

চীনে পড়াশোনারত এমন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা তাঁদের টিকার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার এর আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন। আজ সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় শিক্ষার্থীদের সংগঠন ভয়েস অব বাংলাদেশি স্টুডেন্টস ইন চায়না।

সংগঠনটির পক্ষে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান ফজলে রাব্বী। তিনি বলেন, করোনাভাইরাস মহামারির ফলে প্রায় পাঁচ হাজার এর অধিক শিক্ষার্থী শীতকালীন অবকাশের সময় এবং পরে বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে দেশে ফিরে আসেন। আজ পর্যন্ত তাঁদের ফিরে যাওয়া সম্ভব হয়নি এবং ফিরে যাওয়ার জন্য কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। ইতিমধ্যে চীন সরকার দেশে প্রবেশের শর্ত হিসেবে সে দেশের উৎপাদিত টিকার কথা উল্লেখ করেছে।

বাংলাদেশ সরকার চীনা টিকার জরুরি অনুমোদন দিয়েছে। চীন সরকার দুই ধাপে উপহার হিসেবে টিকা পাঠিয়েছেন তবুও সেদেশেরই প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থিদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয় নি৷

রাব্বি বলেন, ‘চীনে ফিরতে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের টিকার অগ্রাধিকারের জন্য আমরা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য দপ্তরে চিঠি দিয়েছি। পরবর্তী সময়ে অধিদপ্তর তাঁদের নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার ঘোষণা দেয়। তাদের নির্দেশে আমরা স্বেচ্ছায় চার হাজার শিক্ষার্থীর তালিকা দিই। পরে চীনের টিকার অগ্রাধিকারের তালিকায় দেখা গেল, সেখানে আমাদের কথা নেই।’

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, এখন চীনের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় চাইনিজ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রকৌশল এমবিবিএস ও গবেষণায় বিভিন্ন বিষয়ে ১০ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী আছেন। একজন প্রকৌশলী শিক্ষার্থীর তাত্ত্বিক পাঠদানের পাশাপাশি ল্যাবরেটরির কাজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। শুধু অনলাইনে এটা শেখা সম্ভব নয়। এমবিবিএস শিক্ষার্থীদের জন্য সমস্যাটা আরও বেশি প্রকট। ইন্টার্নশিপের সুযোগ না পাওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী ডিগ্রি নিয়ে সংশয়ে আছেন। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল জানিয়েছে, অনলাইনের ইন্টার্নশিপ তাঁরা গ্রহণ করবেন না। এতে মেডিকেল শিক্ষার্থীরা বড় সমস্যায় পড়েছেন।

আজকের মানববন্ধনে চীনে পড়ুয়া বাংলাদেশি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ